পৃথিবীর দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার আর পদ্মামেঘনা তথা গঙ্গাব্রহ্মপুত্রের মিলনস্থল এই বাংলার প্রতি আগ্ৰহ থাকাটাই স্বাভাবিক। সেখানকার সাগরসমো জলরাশি থেকে জেলেদের “ইলিশ” শিকারের দৃশ্য দেখার অভিজ্ঞতা সত্যি রোমাঞ্চকর। কুয়াকাটার একই সৈকত থেকে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত উপভোগ করতে পারবেন, এটি পৃথিবীতে বিরল।

হাজার বছরের ঐতিহ্যে লালিত পুরান ঢাকা এর সাথে এশিয়ার উদীয়মান অর্থনীতির বিরল সাক্ষী মেগাসিটি এই ঢাকা

এপার বাংলার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যে প্রকৃত বাঙালিয়ানার ছোঁয়া আছে সেতো পশ্চিম বঙ্গের বাঙালি মাত্রই অকপটে স্বীকার করেন। লুই আইকন এর অনবদ্য কির্তি জাতীয় সংসদ ভবনের স্থাপত্য শৈলী যেন বাংলাদেশের তাজমহল।

কবি গুরুর কুঠিবাড়ি, জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আর জাতীয়কবি কাজী নজরুল ইসলামের সমাধী দেখে কুষ্টিয়ার লালনের আখড়ায় আসর জমিয়ে লালনগীতি শুনে মনে এক স্বর্গীয় অনুভুতির পরশ ছুঁয়ে যায়।

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদের সাথে অনেক পর্যটক কাশ্মীরের সাথে তুলনা করেছেন। স্বরূপকাঠির ভাসমান সবজি বাগান আর নৌকায় সাজানো নানান রঙের মৌসুমী ফলের পসার। অনেক পশ্চিমা পর্যটক মন্তব্য করেছেন এখানকার নদী আর খালের সচ্ছ পানির ধারা কেরেলার Backwater Trip এর চেয়েও পরিচ্ছন্ন।

সিলেট বিভাগ পুরোটাই নৈস্বর্গিক সৌন্দর্যের আধার। লালাখাল, রাতারগুল সোয়াম্প ফরেস্ট, পাথুরী-নদীর ধারা জাফলং এর মাঝে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান আর শ্রীমঙ্গলে পৃথিবীর বৃহত্তম সবুজ কার্পেটে মোড়া  চাবাগান।

হিন্দু ধর্মীয় ৫১ সতিপিঠের সাতটি উল্লেখযোগ্য পিঠ এপার বাংলায়। মুসলিম ধর্মীয় নতুন পুরাতন বহু নিদর্শনের মধ্যে ষাটগম্বুজ মসজিদ একটি ইউনিস্কো ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্য। এছাড়াও সিলেটে হজরত শাহজালালশাহপরান  (র:), চট্টগ্রামে বায়েজিদ বোস্তামী (রা:), বাগেরহাটে খাঁন জাহান আলী (র:), রাজশাহীর শাহ্ মখদুম প্রমূখ এর মাজার।

বৌদ্ধধর্মের বেশ কিছু নিদর্শন এর মাঝে পাহাড়পুরের সোমপুর বিহার ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্য। বগুড়ায় মহাস্থানগড় আড়াই হাজার বছরের পুরনো সমৃদ্ধশালী পুন্ড্র রাজার বিশাল সাম্রাজ্যের স্মৃতিচিহ্ন। ময়নামতি আর সোমপুর বিহার অষ্টম থেকে দ্বাদশ শতাব্দীতে এই অঞ্চলে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যে এবং ধর্মভিত্তিক শিক্ষা ব্যবস্থার একটি প্রকৃষ্ট উদাহরন।

জামদানী এদেশের তাঁতশিল্পের একটি অনবদ্য নাম, এটি বিশ্ব ঐতিহ্যের অন্তর্ভুক্ত। এছাড়াও টাঙ্গাইল শাড়ি, কুমিল্লার খাদি, যশোরের নকশীকাঁথা, সিরাজগঞ্জের গামছা আর লুঙ্গির বেশ নামডাক। বঙ্গপোসাগরের কোল ঘেঁষে ছোট্ট কোরাল দীপ সেন্ট মার্টিন দ্বীপের স্বচ্ছ পানিতে রঙ্গিন মাছের ছুটোছুটি এমন প্রাকৃতিক সম্পদ সত্যি দূর্লভত।

পৃথিবীর সর্ববৃহৎ ম্যনগ্ৰোভ বন সুন্দরবন পৃথিবীর বেড়াল কুলের সর্ববৃহৎ প্রজাতির রয়েল বেঙ্গল টাইগার এর আবাসভূমির সিংহভাগ (৬০০০ ব.কিমি) বাংলাদেশের। অনেক ভারতীয় ছায়াছবির সুটিং সুন্দরবনের এপারে হয়ে থাকে, কারণ জিজ্ঞাসা করলে পরিচালকগন বলেন এপারের সুন্দরবন অনেক বেশি প্রাকৃতিক ঐশর্যে লালিত।

এদেশের ক্ষুদ্র ভৌগলিক পরিসরে এমন বৈচিত্র্যময় পর্যটন আকর্ষণের সমাহার সত্যিই বিরল। বাংলাদেশ একটি ছোট্ট রাষ্ট্র, কিন্তু এর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের সম্ভার বিশ্ব মানচিত্রের অনেক প্রতাপশালী দেশের কাছেও ঈর্ষণীয়।